মাছের তরকারি

একটা দুটো যাই বা মেলে

কৈ ভেজে খাই কৈ এর তেলে

তাতেই বাজিমাৎ

চিংড়ি মাছের মালাইকারি

আর কি দেরি সইতে পারি

থাকলে গরমভাত!

লটে মাছের তরকারিতে

ঝাল হয়েছে বেশ

পুইশাকেতে চিংড়ি দিলে

থাকবে স্বাদের রেশ।

 

সর্ষে ইলিশ , শুঁটকি লতি

খাওয়ার প্রতি ঝোঁক যে অতি

শিং-মাগুরের ঝোল

আলু-পটল শিমের সাথে

ট্যাংরা-পুঁটি রাঁধলে তাতে

বাড়বে যে শোরগোল।

 

কাতলা এবং শোলের ভুনা

বুয়াল মাছের মুড়ো

সবাই খেতে ভালোবাসে

হোক না ছেলে-বুড়ো।

 

টাকী মাছের ভর্তা পেয়ে

কিংবা চিতল কোপ্তা খেয়ে

ভুলতে কি আর পারি

মাছের ডিমে ভেণ্ডিভাজা

খেলে যে মন হবেই তাজা

গাই গুণগান তারই।

 

 

কবি খোন্দকার শাহিদুল হক

সকল পোস্ট : খোন্দকার শাহিদুল হক

৮ thoughts on “মাছের তরকারি

    1. অনেকদিন পর আপনার দেখা পেলাম। খাবারদাবার খুব একটা ভালো চলছে না। এখনো পোস্ট করোনা সিনড্রমে আক্রান্ত। মাছের মিছিল নামক বই থেকে কয়েকটা প্রকাশ করতে ইচ্ছে হলো তাই। যাক আপনার জন্য অনেক অনেক ধন্যবাদ আর শুভেচ্ছা রইল।

মন্তব্য করুন