নীলার চিঠি-৭

অভি,
কেমন আছো?
ঝমঝম বৃষ্টিতে টিনের চালে ছন্দের খেলা।
বৃষ্টির শব্দে আমার মন উতলা সকালবেলা।
চারদিকে গাঢ় অন্ধকার আর বৃষ্টির আসা যাওয়া।
জানালা পথে তাকিয়ে দেখি থমকে আছে মেঘেরা। মেঘেদের ছুটোছুটি আর নেই।
আজ বুঝি অঝোর ধারায় কাঁদবে শুধুই তারা।
এই কান্না বুঝি শুধুই আমার।
মেঘলা আকাশ বৃষ্টি সব বুঝি একাকার আমার বিরহী দরজায়।
মনে হয় মুখোমুখি বসে নিঝুম পরিবেশে
হাতে হাত রেখে বসি বারান্দায়!
কিন্তু সংসারের মানুষ গুলো বলে
বয়স তো পঞ্চাশের কোঠায়।
রং ঢং রাখো।
সংসারে মন দাও।
আচ্ছা ভালোবাসা আর অনুভূতির চাষে বয়স কি বড়ই বাঁধা?
কৈশোরে প্রেম কুঁড়ি
যৌবনে লজ্জাবতী
আর মধ্য বয়সে প্রেম নির্লজ্জ??
কি ধারণা তোমাদের!!
তাহলে মানুষের জীবনে আসলেই কি প্রেম প্রস্ফুটিত হয় না কখনো?
অথচ প্রেম নাকি স্বর্গীয়।
যা স্বর্গীয় তা কখনো অপবিত্র হয়?
তাহলে এসো ঝুম বৃষ্টিতে ভিজি দুজনায়।
তোমার স্বর্গীয় প্রেম আমাকে বৃষ্টির মতো ভিজিয়ে দিয়ে যায়।
ভালো থেকো ঝমঝম বৃষ্টি বরষায়।
নীলা।

কবি সুপ্রিয়া বিশ্বাস

সকল পোস্ট : সুপ্রিয়া বিশ্বাস

৬ thoughts on “নীলার চিঠি-৭

    1. আচ্ছা ভালোবাসা আর অনুভূতির চাষে বয়স কি বড়ই বাঁধা?
      কৈশোরে প্রেম কুঁড়ি
      যৌবনে লজ্জাবতী
      আর মধ্য বয়সে প্রেম নির্লজ্জ??
      কি ধারণা তোমাদের!!
      তাহলে মানুষের জীবনে আসলেই কি প্রেম প্রস্ফুটিত হয় না কখনো?
      অথচ প্রেম নাকি স্বর্গীয়।
      যা স্বর্গীয় তা কখনো অপবিত্র হয়?
      কবির এ ভাবনা চিরন্তন অথচ রয়ে যায় অগোচরে! ধন্যবাদ কবি।

  1. কিন্তু সংসারের মানুষ গুলো বলে
    বয়স তো পঞ্চাশের কোঠায়।
    রং ঢং রাখো।
    সংসারে মন দাও।

    সংসারে মানুষের শুধুই ঘুত ধরা পঞ্চাশের কোঠায় কি সংসারের হাল ধরে না ছাড়ে। এখন তো সময় গভীর ভাবনায় অতীত স্বপ্ন ডাংগায় ডিঙ্গিয়ে প্রেমময় খেলায় মত্ত থাকা। সুন্দর কাব্যিক প্রকাশ কবি।

মন্তব্য করুন